74 

ডেস্ক নিউজঃ তুরস্কের ইস্তাম্বুলের বসফরাস প্রণালীর ওপর চাপ কমাতে ইস্তাম্বুল খাল খনন প্রকল্পের উদ্বোধন করেছেন প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়েব এরদোগান। শনিবার আনুষ্ঠানিকভাবে এই প্রকল্প উদ্বোধন করেন তিনি।

বসফরাস প্রণালী দিয়ে চলা নৌ চলাচলের চাপ কমাতে ওই খাল খননের কথা বলা হলেও সমালোচকরা অভিযোগ করে বলেছেন, এটি পরিবেশ বিপর্যয় সৃষ্টি করবে।

ইস্তাম্বুল খাল বসফরাস প্রণালীর সমান্তরাল একটি বিশাল জলপথ যা কৃষ্ণসাগরকে মারমারা সাগর ও ভূমধ্যসাগরের সাথে সংযুক্ত করবে।

প্রকল্পের অংশ হিসেবে একটি সেতুর ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন অনুষ্ঠানে এরদোগান বলেন, ‘আজ আমরা তুরস্কের উন্নয়নের ইতিহাসে একটি নতুন অধ্যায়ের সূচনা করতে যাচ্ছি।’

৪৫ কিলোমিটার দীর্ঘ জলপথ কৃষ্ণসাগরকে বৈশ্বিক সামুদ্রিক নেটওয়ার্কের সাথে সংযুক্ত করবে, যা ইউরোপীয় ভূ-রাজনীতি এবং শতাব্দীর পর শতাব্দী ধরে দ্বন্দ্বের কেন্দ্রবিন্দুতে কৌশলগতভাবে গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ।

এরদোগানের নিন্দুকরা অভিযোগ করেন, এই প্রকল্প তুরস্কে পরিবেশগত বিপর্যয় সৃষ্টি করবে এবং দেশটিকে অনাবশ্যকভাবে ঋণে জর্জরিত করবে।

এরদোগান তার বক্তৃতায় এই প্রকল্প বাস্তবায়নের তার দৃঢ় অবস্থান ব্যক্ত করেছেন। বসফরাসের মধ্য দিয়ে যাওয়া জাহাজের সংখ্যা বৃদ্ধিতে চাপ কমানোর কথা উল্লেখ করে এরদোগান বলেন, এই প্রকল্পের মূল লক্ষ্য ‘ইস্তাম্বুলের (তুরস্কের) নাগরিকদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করা এবং আন্তর্জাতিক বাণিজ্যে দেশকে গুরুত্বপূর্ণ অবস্থানে নিয়ে যাওয়া।’

সমালোচকদের বক্তব্য নাকোচ করে তিনি বলেন, ‘এই প্রকল্পের সকল পর্যায়ে বৈজ্ঞানিক নকশা অনুসরণ করা হচ্ছে।’

দেশের বাইরে এই প্রকল্প নিয়ে ব্যাপক সমালোচনা প্রধানত রাশিয়া প্রকল্পের সমালোচনা করে বলেছে, এই প্রকল্প কৃষ্ণসাগরে ন্যাটোর প্রবেশ সহজ করবে।
সূত্র : বাসস.

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *