183 

আনোয়ার হোসাইন: “যাত্রী সাধারণের ফুটপাত হকারমুক্ত চাই”। সিলেট নগরী হবে এক খন্ড লন্ডন-পরিচ্ছন্ন শহর। সিলেট বাসীর দীর্ঘ দিনের এই দাবী বাস্তবে রূপ নিতে চলেছে। সিলেট নগরীর সাম্প্রতিক অবস্থা দৃশ্য বিবেচনায় বলা যায়, সিলেট নগরীর ফুটপাত এখন প্রায় হকারমুক্ত। এতে দেশের উন্নয়নকামী সচেতন মহলের যে দাবী “সিলেট কে পর্যটন নগরী হিসাবে দেখতে চাই” এই স্বপ্নের ছোঁয়াও ফুটে উঠতে শুরু করেছে।

নগরীর চৌহাট্রা থেকে জিন্দাবাজার হয়ে মধুবন পর্যন্ত রাস্তাটি এক অনন্য আঙ্গিকে গড়ে তোলা হচ্ছে। হকারদের জন্যে সিটি ভবনের পাশে আলাদা বিশাল জায়গা করে দেওয়া হয়েছে। এছাড়া হকাররা পাড়া মহল্লায় গিয়েও ফেরী করতে পারবেন। উন্নয়ন কাজ প্রায় শেষ হয়ে এসেছে। লন্ডনের আদলে গড়ে তোলা হচ্ছে রাস্তার ডিভাইডার সাজ। সিলেট নগরী হতে চলছে এক খন্ড লন্ডন।

সিলেটের জন সাধারণের আলোচনায় মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী ও পররাষ্ট্রমন্ত্রী ডঃ এ কে আব্দুল মুমিন এখন প্রাসঙ্গিক বিষয় হয়ে উঠেছেন। এক সিনিয়র সাংবাদিক সম্প্রতি তাঁর ফেইসবুক স্টেটাসে লিখেছেন, সিলেট নগর মানে মেয়র আরিফ। তাকে জানাই অভিন্দন ও শুভেচ্ছা।

কেউ কেউ বলছেন, মেয়র আরিফ সিলেট নগরীর উন্নয়নের রূপকার হলেও কার্যতঃ শক্তি ডঃ এ কে আব্দুল মুমিন। এত সব কোটি কোটি টাকার উন্নয়ন অনুদান তাঁর হাত ধরেই এসেছে। আ হ ম ফিরোজ নামে জিন্দাবাজারের এক বিশিষ্ট ব্যবসায়ী অদক্ষ ঠিকাদার নিয়োগের অভিযোগ করেন । তিনি নগরীর ড্রেনের কাজ টেকসই হচ্ছে না বলে জানান।

তবে, আলোচনার পাশাপাশি উদ্বেগ দেখা দিয়েছে ব্যবসায়ীদের মধ্যে। মার্কেট গুলোতে আগের মত ক্রেতা সাধারণের ভীড় লক্ষ্য করা যাচ্ছে না। এ অবস্থার কারণ কি হতে পারে? কেউ বলছেন, করোনা পরিস্থিতির কারণে এ অবস্থা হতে পারে। আবার কারো কারো মতে, বর্তমান হকারমুক্ত ও যানজটমুক্ত পরিবেশ কারণ হিসাবে ভাবতে হবে। আব্দুল্লাহ নামে এক যুবক ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, মানুষের হাতে এখন টাকা নাই, কি কিনব ভাই? নিত্য পণ্য ক্রয় করাই এখন কঠিন হয়ে গেছে । একজন ব্যবসায়ী এ প্রতিবেদকের সাথে আলাপ কালে বলেন, মার্কেট গুলোতে কাষ্টমারদের ভীড় জমে উঠবে নিশ্চয়। নগরীতে ভিন্ন একটা আমেজ ঘন নতুন পরিবেশ তৈরী হয়েছে। তিনি ব্যবসায়ীদের কে ধৈর্য্য ধরতে আহবান জানান।

তিনি বলেন, নগর হবে নগরীর মত -আমরা তো এমন একটি নগরীই চেয়েছিলাম। এক খন্ড লন্ডনের প্রত্যাশায় সিলেট বাসীর দীর্ঘ দিনের হকারমুক্ত পরিচ্ছন্ন শহরের দাবী এখন বাস্তবে রূপ নিতে চলেছে। খবরঃ একে নিউজ মিডিয়া

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *