126 

ডেস্ক নিউজ: করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে বেহাল ভারত। এক লাখের গণ্ডি আগেই পেরিয়েছিল। এবার গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত এক লাখ ১৬ হাজার জন। ভারত সরকার জানিয়েছে, আগামী চার সপ্তাহ ‘‌খুব ‌সঙ্কটজনক’‌।

গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে আক্রান্ত হয়েছেন এক লাখ ১৫ হাজার ৭৩৬ জন। ভারতে এখন পর্যন্ত মোট আক্রান্তের সংখ্যা ছাড়াল এক কোটি ২৮ লাখ। গত ২৪ ঘণ্টায় ভারত মারা গেছেন ৬৩০ জন। এখন পর্যন্ত করোনায় মারা গিয়েছেন এক লাখ ৬৬ হাজার ১৭৭ জন। সংক্রমণের নিরিখে বিশ্বে তৃতীয় ভারত। প্রথম আমেরিকা, দ্বিতীয় ব্রাজিল।

ভারতে সবচেয়ে বেশি সংক্রমণ মহারাষ্ট্রে। সেখানে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ৫৫ হাজার জন। এছাড়াও ছত্তিশগড়, দিল্লি, কর্নাটক, উত্তরপ্রদেশে পরিস্থিতি যথেষ্ট খারাপ। দৈনিক আক্রান্ত এখানে লাফিয়ে বাড়ছে। তবে মোট সংক্রমণের নিরিখে মহারাষ্ট্রের পরে রয়েছে কেরল, কর্নাটক, অন্ধ্রপ্রদেশ, তামিলনাড়ু।

ছত্তিশগড়ে গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত হয়েছেন ৯ হাজার ৯২১ জন। দিল্লিতে আক্রান্ত হয়েছেন ওই একই সময়ে ৫,১০০ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে সুস্থ হয়েছেন ৫৯ হাজার ৮৫৬ জন। যে হারে সংক্রমণ বাড়ছে, তাতে আগামী চার সপ্তাহ খুবই আশঙ্কাজনক বলে মনে করছে কেন্দ্রে।

নীতি আয়োগ (‌‌স্বাস্থ্য)‌‌ সদস্য ডা.‌ ভি কে পল জানালেন, আগের বারের তুলনায় এবার সংক্রমণের হার অনেক বেশি। আগামী চার সপ্তাহ সচেতন থাকতে হবে। এই দ্বিতীয় ঢেউ নিয়ন্ত্রণ করতে গেলে মানুষকে এগিয়ে আসতে হবে।
প্রশ্ন উঠছে, এই পরিস্থিতিতে দেশে টিকাকরণ সকলের জন্য চালু কেন করা হচ্ছে না?‌ কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য সচিব রাজেশ ভূষণ জানিয়েছেন, জানিয়েছেন জুলাই পর্যন্ত দেশে টিকার জোগান যথেষ্ট নয়। তাই এই ব্যবস্থা সম্ভব নয়।

সূত্র : আজকাল..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *