138 

ডেস্কনিউজঃ পর্তুগালে করোনা পরিস্থিতির কারণে বিভিন্ন পেশার মানুষ ব্যাপক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন। এরই মধ্যে বাংলাদেশী অনেকে ব্যবসায়ীরা বেশি ক্ষতিগ্রস্তের হয়েছেন।পাশাপাশি অনেক ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্পের ব্যবসায়ী বা উদ্যোক্তারা পুঁজি সংকটের ফলে ব্যবসাও পরিবর্তন করেছেন।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, শুধু ব্যবসা প্রতিষ্ঠান নয়, পর্তুগালে প্রায় ছোট-বড় কয়েকশ দোকানে কয়েক হাজার কর্মচারী কাজের সংকটে রয়েছেন। অর্থনৈতিক সংকটে দিশেহারা হয়ে অনেক ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ হয়ে যাবার পথে।

ব্যবসায়ীরা বলছেন, পরিস্থিতি দ্রুত নিয়ন্ত্রণে না এলে অনেক লোকসানের সম্মুখীন হতে হবে তাদের। ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ করে মাসের পর মাস দোকান ভাড়াসহ অনেক কিছু বহন করে যেতে হচ্ছে ব্যাবসায়ীদের। কিছু ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ব্যয়ভার বহন করতে না পারায় দোকান ছেড়ে দিতে বাধ্য হয়েছে।

প্রত্যাশিত পুঁজি বা ঋণের অভাবে অনেকেই এখন বিকল্প ব্যবসায় ঝুঁকছেন। সবচেয়ে বেশি সমস্যার সম্মুখীন হচ্ছেন পর্তুগালের রাজধানী লিসবনের রেস্টুরেন্ট মালিকরা। ধস নেমেছে রেস্টুরেন্ট ব্যবসায়। প্রতিদিনই বাড়ছে লোকসান। সরকারের পক্ষ থেকে নতুন ব্যবসায়ী-উদ্যোক্তাদের জন্য কোনো সহযোগিতা করা হচ্ছে না।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *