545 

মুসলিম খান, লন্ডনঃ বাংলাদেশে ডিজিটাল সিকিউরিটি অ্যাক্ট আইন করে সাংবাদিক সহ সকলের মত প্রকাশে স্বাধীনতা বন্ধ করে দিয়েছে আওয়ামী লীগ সরকার। এর প্রতিবাদে গত ৫ জুলাই’ ২১ ইং রোজ সোমবার,বিকাল পাঁচ ঘটিকার পূর্ব লন্ডনে’র আলতাব আলী পার্কে নিরাপদ বাংলাদেশ চাই (নিবাচা) ইউকে শাখার এক প্রতিবাদ অনুষ্ঠিত।
উক্ত সভায় সংগঠনের সহ সভাপতি দিলোয়ার হোসেনের সভাপতিত্বে ও সংগঠনের সেক্রেটারী মাজেদুল ইসলাম খানের পরিচালনায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে ব্যারিস্টার নাজির আহমদ এই আইনে শাস্তির বিষয় উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘এই আইনের আওতায় কেউ যদি ডিজিটাল মাধ্যম ব্যবহার করে মুক্তিযুদ্ধ, মুক্তিযুদ্ধের চেতনা এবং জাতির জনক বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে কোনও ধরনের প্রপাগান্ডা চালান, তাহলে ১৪ বছরের জেল ও এক কোটি টাকা জরিমানা বা উভয় দণ্ডের বিধান রাখা হয়েছে। ২৮ ধারায় বলা হয়েছে, কেউ যদি ধর্মীয় বোধ ও অনুভূতিতে আঘাত করে, তাহলে ১০ বছরের জেল ও ২০ লাখ টাকা জরিমানা বা উভয় দণ্ডের বিধান রাখা হয়েছে। তিনি এই আইন সংশোধনী করার আহবান জানান। বিশেষ অতিথির বক্তব্যে জনাব ব্যারিস্টার এম,এ,মুহিত খান বলেন এই আইনটি সংশোধনী করে সকলে মত প্রকাশে সুযোগের আহবান জানান। এ ছাড়া বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন সুনামগঞ্জ জেলা বিএনপি’র সহ সভাপতি আশিকুর রহমান আশিক বলেন, এই কালো আইন করে সরকার টিকে থাকতে পারবেনা। তিনি বলেন সরকারের উচিত এই আইন বাতিল করা।
এছাড়া বক্তব্য রাখেন এম,এস,টিভি’র সম্পাদক মুসলিম খান, তিনি বলেন যে দেশে সরকার অবৈধ সে দেশে এই কালো আইন ও অবৈধ। তিনি বলেন এই আইনে সাংবাদিকদের মত প্রকাশের সুযোগ বন্ধ করে দিয়েছে। এছাড়া বক্তারা বলেন এই কালো আইন সরকার টিকে থাকার আইন। সরকারের দূর্নীতির বিরুদ্ধে যাহাতে কথা বলতে না পারে সে জন্য এই কালো আইন।

অনান্য দের মধ্যে বক্তব্য রাখেন ইউনিভার্সেল ভয়েস ফর হিউম্যান রাইটসের সভাপতি জাকের আহমদ চৌধুরী, জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট ইউকের সেক্রেটারী সাইফুর রহমান পারভেজ, জাস্টিজ ফর ভিকটিমের সভাপতি জহিরুল ইসলাম, ইউনিভারসাল ভয়েস ফর জাস্টিসের ভাইস চেয়ারম্যান মো: তরিকুল ইসলাম, (নিবাচা) সহ সভাপতি আলী হোসেন, জাস্টিজ ফর ভিকটিমের সেক্রেটারী লায়েক আহমদ, প্রোগ্রাম সম্নয় কারী তাহমিদ হোসেন খান, ইআরআইর সহ সেক্রেটরী মোহাম্মদ আবু তালেব, ইআরআইর অফিস সেক্রেটারী আবু জাফর আব্দুল্যাহ, (নিবাচা) সহ সাংগঠনিক সম্পাদক বুরহান উদদীন চৌধুরী, আর ও বক্তব্য রাখেন জামায়াত নেতা আরিফ আহমদ, আতিকুর রহমান, যুবদল নেতা হাসিবুর রহমান,মির্জা আবুল আহমদ,বি,এম,এম,তামজিদ ,সেচছা সেবক দলের সেক্রেটারী মোহাম্মদ আব্দুর রহমান, সাবেক ছাত্র দল নেতা এস,এম,ওয়াহিদ সিদ্দিকী, মানবাধিকার কর্মী মিফতা উদ্দীন, মামুন মিয়া,ওমর ফারুক,এমরান আহমদ নাঈম,শফিউল ইসলাম জুনেদ,শহিদুল ইসলাম, ইকবাল হোসেন, আবু খালেদ, ফাহাদুজ্জামা,শেখ আশিক মাহমুদ,আসাদুল হক,মারুফ আহমদ, বাবুল আহমদ, আবদুল কাদের জিলানী,আতাউর রহমান,মাসুকে এলাহী,মোঃরাকিব,আলী শাহজাদা, নজির আহমদ, সুয়াইবুর রহমান, মোশাররফ হোসেন, জাতীয়তাবাদী ছাত্রীদলের ফারিয়া আখতার সুমী,চৌধুরী তাহমিনা রহমান, প্রমূাখ।
অনুষ্ঠানেৃকোরআন থেকে তেলাওয়াত করেন মোঃ গোলজার হোসেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *