178 

মুসলিম খান, লন্ডন:  সাবেক ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী টনি ব্লেয়ার ও স্যার জন মেজর দেশটির পার্লামেন্টের সদস্যদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন বরিস জনসনের লজ্জাজনক সংশোধিত ব্রেক্সিট বিল প্রত্যাখ্যানের জন্য। ব্রিটিশ দৈনিক পত্রিকা সানডে টাইমস-এ লেখা এক নিবন্ধে এই আহ্বান জানান তারা। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি এখবর জানিয়েছে।

ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন বলছেন, ইউরোপীয় ইউনিয়ন আইরিশ সাগরে একটি কাস্টম সীমান্ত আরোপ করতে চাইছে। এতে করে নর্দার্ন আয়ারল্যান্ড যুক্তরাজ্য থেকে বিচ্ছিন্ন হবে।

টনি ব্লেয়ার ও স্যার জন মেজর অভিযোগ করেছেন, সরকার যুক্তরাজ্যকে বিব্রতকর অবস্থায় ফেলছে।

সোমবার হাউস অব কমন্সে ইন্টারনাল মার্কেট বিল নামের এই বিলটি বিতর্কের জন্য উত্থাপন করা হবে। এই বিলটি ২০২০ সালের শুরুতে ইইউ ও যুক্তরাজ্যের মধ্যকার প্রত্যাহার চুক্তির সঙ্গে সাংঘর্ষিক। বিলটি আইনে পরিণত হলে ব্রিটিশ মন্ত্রীদের ক্ষমতা থাকবে ব্রিটেন ও নর্দার্ন আয়ারল্যান্ডে পণ্য পরিবহণ বিষয়ে বিভিন্ন সিদ্ধান্ত গ্রহণের। ইইউ ও যুক্তরাজ্য যদি বাণিজ্যিক চুক্তিতে সমঝোতায় পৌঁছাতে না পারে তাহলে ১ জানুয়ারি থেকে এটি কার্যকর হবে।

সাবেক কনজারভেটিভ প্রধানমন্ত্রী স্যার জন মেজর ও লেবার পার্টির প্রধানমন্ত্রী টনি ব্লেয়ার লিখেছেন, সরকারের এই উদ্যোগ দায়িত্বজ্ঞানহীন, নীতিগতভাবে ভুল এবং বাস্তবায়নে বিপজ্জনক।

তারা আরও লিখেছেন, এতে শুধু আয়ারল্যান্ড নয়, শান্তি প্রক্রিয়া ও বাণিজ্যিক চুক্তির মতো গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে প্রভাব ফেলবে। এটি আমাদের জাতির অখণ্ডতার প্রশ্ন।

ব্রেক্সিট বিরোধিতাকারী এই দু্ই সাবেক ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, দেশের আইনের মতোই চুক্তি মেনে নেওয়ার বাধ্যবাধকতা রয়েছে। তারা এমপিদের বিলটি প্রত্যাখানের আহ্বান জানান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *