73 

ডেস্ক নিউজঃ লকডাউনের তৃতীয় দিন চলছে আজ শনিবার (৩ জুলাই)। লকডাউন কার্যকরে সিলেটে মাঠে রয়েছেন পুলিশ, সেনাবাহিনী, বিজিবি ও র‌্যাব সদস্যরা। সকাল থেকেই বিভিন্ন জায়গায় টহল দিতে দেখা গেছে তাদের।

সিলেটের প্রবেশদ্ধার দক্ষিণ সুরমা, কুমারগাঁও তেমুখী বাইপাস, শাহপরাণ পয়েন্ট, শেখঘাট, বিমানবন্দর সড়ক, ফেঞ্চুগঞ্জ সড়কসহ বিভিন্ন জায়গায় তল্লাশি চালানো হচ্ছে চেকপোস্টে।

সিলেটে এমনিতেই বৃষ্টিস্মাতভাব, সকাল থেকে থেমে থেমে হালকা বৃষ্টি হচ্ছে। জবুতবু পরিবেশ বিরাজ করছে। এদিকে,. জরুরি প্রয়োজন ছাড়া ঘর থেকে বের হলে জরিমানা করার পাশাপাশি সদুত্তর না পেলে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী তাদেরকে বাসা-বাড়িতে ফিরিয়ে দিচ্ছে। এছাড়া জরুরি পরিষেবায় নিয়োজিতরা পরিচয়পত্র দেখানো ও প্রয়োজনীয়তার বিষয়টি তল্লশির সময় আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে জানালে তারা তাদের গন্তব্যে বা কর্মস্থলে যেতে পারছেন। কঠোর লকডাউন কার্যকর করতে পুলিশ, বিজিবির পাশাপাশি সেনাবাহিনী কাজ করে যাচ্ছে। শনিবার সকাল থেকে জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের তত্ত্বাবধানে সিলেটের বিভিন্ন স্থানে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর পাশাপাশি সেনাবাহিনী, বিজিবি ও র‌্যাব সদস্যদের টহল দিতে দেখা গেছে। চলমান লকডাউন অমান্য করে প্রথম দিন অযৌক্তিক কারণে বাইরে বের হওয়ার অভিযোগে সিলেট মহানগরীসহ ১৩টি উপজেলায় ৩৩টি মোবাইল টিম অভিযান পরিচালনা করেছে। এদিকে শুক্রবার লকডাউনের বিধি নিষেধ অমান্য করায় এসএমপি পুলিশ বিভিন্ন যানবাহনকে ৯৪টি মামলা এবং ১১৬টি যানবাহন আটক করে। মামলা দেওয়া যানবাহনের মধ্যে সিএনজি অটোরিকশা ১০টি, মোটরসাইকেল ৬৭টি, প্রাইভেটকার ১১টি, অন্যান্য যানবাহন ৬টি রয়েছে। এছাড়া আটকের মধ্যে সিএনজি অটোরিকশা ১৩টি, মোটরসাইকেল ৫২টি, প্রাইভেটকার ৯টি ও অন্যান্য যানবাহন ৪২টি রয়েছে।

জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে শুক্রবার লকডাউন পালন ও স্বাস্থ্য বিধি অনুসরণ নিশ্চিত করতে সারাদিনব্যাপী সিলেট মহানগর ও সকল উপজেলায় ১‘৩৩ জন এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট একযোগে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করে। মোবাইল কোর্ট পরিচালনাকালে ১৮৭ টি মামলা এবং এ সময় জরিমানা করা হয় ২ লাখ ২৫ হাজার ৫’শ টাকা। মহানগর পুলিশের উপ পুলিশ কমিশনার আশরাফ উল্যাহ তাহের বলেন, পুলিশসহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর একাধিক দল লকডাউন বাস্তবায়নে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। টহল পুলিশের পাশাপাশি গুরুত্বপূর্ণ মোড়ে মোড়ে চেকপোস্ট বসিয়ে পুলিশের অভিযান অব্যাহত আছে। সেই সাথে জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের তত্ত্বাবধানে মাঠে কাজ করে যাচ্ছে একাধিক টিম।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *